চিকিৎসায় আস্থার ঠিকানা

সেন্ট্রাল হসপিটাল লিমিটেড

https://www.kalerkantho.com/feature/health-care-special-numbers/2019/06/01/775604

ধানমণ্ডির গ্রিন রোডে বেসরকারি পর্যায়ে দেশের প্রথম অত্যাধুনিক হাসপাতাল হিসেবে ১৯৯৯ সালে যাত্রা শুরু করে সেন্ট্রাল হসপিটাল লিমিটেড। প্রয়াত জাতীয় অধ্যাপক ডা. এম আর খান এবং অধ্যাপক ডা. মতিওর রহমানের নেতৃত্বে কয়েকজন চিকিৎসক ও বিভিন্ন পেশার উদ্যোক্তা মিলে এ হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। সাশ্রয়ী খরচে মানসম্মত চিকিৎসাসেবা প্রদানে তাঁদের সুনাম সুবিদিত, বিশেষ করে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া চিকিৎসায় সারা দেশে হাসপাতালটি বেশ সুনাম অর্জন করেছে

সেন্ট্রাল হসপিটালে ২৪ ঘণ্টা জরুরি বিভাগসহ বিভিন্ন বিভাগের মধ্যে রয়েছে মেডিসিন, আইসিইউ, এইচডিইউ, ইমার্জেন্সি, এনআইসিইউ, পেডিয়াট্রিক, ডায়াবেটিস ও এন্ডোক্রাইনোলজি, গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি, নিউট্রিশন, ইন্টারনাল মেডিসিন, ফ্যামিলি মেডিসিন, ইএনটি ও হেড-নেক সার্জারি, জেনারেল সার্জারি, হেমাটোলজি, ল্যাবরেটরি মেডিসিন, নিওনেটাল মেডিসিন, নিউরোলজি, গাইনোকোলজি, অর্থোপেডিকস, অনকোলজি, ফিজিওথেরাপি, সাইকিয়াট্রি, রেডিওলজি অ্যান্ড ইমেজিং ইত্যাদি বিভাগ।

চিকিৎসক

এই হাসপাতালে দেশের খ্যাতনামা চিকিৎসকরা চিকিৎসা প্রদান করে থাকেন। উল্লেখযোগ্য কয়েকজন হলেন অধ্যাপক ডা. মতিওর রহমান, অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ, অধ্যাপক ডা. সামিনা চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. মালিহা রশীদ, অধ্যাপক ডা. সাবেরা খাতুন, অধ্যাপক ডা. ফারহানা দেওয়ান, অধ্যাপক ডা. সংযুক্তা সাহা, অধ্যাপক ডা. এ এস এম বজলুল করিম, অধ্যাপক ডা. হাবিবুর রহমান, অধ্যাপক ডা. মো. মিজানুর রহমান, অধ্যাপক ডা. এ এফ এম সেলিম, অধ্যাপক ডা. সাঈদা আনোয়ার, অধ্যাপক ডা. সজল মজুমদার, অধ্যাপক ডা. বদরুল আলম, অধ্যাপক ডা. আবু হানিফ, অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক, অধ্যাপক ডা. মনিরুজ্জামান খান, অধ্যাপক ডা. মনিরুজ্জামান, অধ্যাপক ডা. কামরুজ্জামান খান, অধ্যাপক ডা. সালমা সুলতানা, অধ্যাপক ডা. বোরহান উদ্দিন খান, অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগম, অধ্যাপক ডা. জিল্লুুর রহমান ভুঁইয়া, অধ্যাপক ডা. এ বি এম শহিদুল আলম প্রমুখ।

ইনডোর, আউটডোর ও ইমার্জেন্সি

সেন্ট্রাল হসপিটালের মোট বেডসংখ্যা ২৬০টি। প্রতিটি বিভাগের জন্য পৃথক পৃথক ইনডোর মেডিক্যাল অফিসার রয়েছেন, যাঁরা সার্বক্ষণিক ভর্তিরত রোগীদের তদারকি করেন এবং কনসালট্যান্টদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করেন। ভর্তিরত রোগীর খাবারসহ বেডভাড়া ২০০০ টাকা থেকে শুরু। ডাবল বেডের নন-এসি কেবিন ভাড়া চার হাজার ৫০০ থেকে পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা। এসি কেবিন পাঁচ হাজার ৫০০ থেকে সাত হাজার টাকা পর্যন্ত। এ ছাড়া রয়েছে ভিআইপি, ডিলাক্স ও সুপার ডিলাক্স কেবিন। ৩০০ টাকা ফি প্রদানের মাধ্যমে ২৪ ঘণ্টা ইমার্জেন্সি সেবা পাওয়া যায়। উন্নত যন্ত্রপাতিসমৃদ্ধ আধুনিক ল্যাবরেটরিতে রয়েছে সব ধরনের প্যাথলজি ও রেডিওলজি পরীক্ষা-নিরীক্ষার ব্যবস্থা।

কর্তৃপক্ষের বক্তব্য

সেন্ট্রাল হসপিটালের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মতিওর রহমান বলেন, ‘মানসম্মত চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। বিগত ২০ বছর ধরে তুলনামূলক কম খরচে মানসম্মত চিকিৎসাসেবা দিয়ে সবার আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের একটি নার্সিং ইনস্টিটিউট রয়েছে এবং ভবিষ্যতে একটি মেডিক্যাল কলেজ স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে।’

যোগাযোগের ঠিকানা

বাড়ি ০২, রোড ০৫

গ্রিন রোড, ধানমণ্ডি, ঢাকা-১২০৫

টেলিফোন : ৯৬৬০০১৫-১৯, ৫৮৬১১০৫০-৫৪

অন্যান্য নম্বর

ভর্তি ও তথ্য ০১৭৩৮৮৮০১৩৬, ডাক্তার অ্যাপয়েনমেন্ট ০১৭৩৮৮৮০১৩৪, জরুরি বিভাগ ০১৭৬৩৭৯৬৬৯০,  আইসিইউ ০১৭২০২১২৫৮৩, এনআইসিইউ ০১৭৩২৫৮৫৭৭৬,

ই-মেইল : chl@bol-online.com

ওয়েবসাইট : www.centralhospitalltdbd.com

Categories : News